মঙ্গলবার | ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

A National Daily In Bangladesh

করোনায় লক্ষাধিক প্রবাসীর ভিসা বাতিলের ঝুঁকিতে

করোনায় লক্ষাধিক প্রবাসীর ভিসা বাতিলের ঝুঁকিতে

ক‌রোনা ভাইরাসে সমগ্র পৃ‌থিবী‌তে‌ এক ভয়াবহ মহাম‌া‌রি রুপ নি‌য়ে‌ছে। যার প্রভাব পড়ে‌ছে সমগ্র দেশগু‌লো‌তে। বাদ প‌ড়ে‌নি বাংলা‌দে‌শেও।‌ যেখা‌নে দে‌শের অর্থনী‌তির মেরুদণ্ড বলা হত রে‌মি‌টেন্স যোদ্ধা‌দের, সেখা‌নে ক‌রোনার প্রভাবে মধ‌্যপ্রাচ‌্যসহ ‌বি‌ভিন্ন দেশে কর্মহীন হাজা‌র হাজার শ্রমিক।

অপর‌দি‌কে, অনেক শ্রমি‌কের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে, এমনকি মেয়াদ শেষ হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে আরও ৮০ হাজারেরও বে‌শি শ্রমিক। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে ব‌লে জানা গে‌ছে।

জনশক্তি রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) তথ্যে জানা যায়, ক‌রোনা মহামারির শুরুর সময় ইস্যুকৃত ভিসা চূড়ান্ত পর্যায়ে ছিল ৮৫ হাজার ৪০৫টি। এসব ভিসাধারী শ্রমিকের অনেকেই সৌদি আরব, দুবাই, সিঙ্গাপুর, কাতার, কুয়েত সহ মধ্য প্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় ছিলেন।

অপর‌দি‌কে ত‌থ্যে আরও জানা যায়, প্রক্রিয়ায় থাকা যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করে তাদের অনেকেই বিমা‌নের টিকিটও কিনে রেখে ছিলেন। আবার কারো কারো ভিসা হয়েছিল, কিন্তু টিকিট কাটা হয়নি তাদের সক‌লের বি‌দে‌শে যাওয়া অনিশ্চিত হ‌য়ে প‌ড়ে‌ছে। এমন‌কি দ্রুত ক‌রোনা প‌রি‌স্থি‌তি স্বাভা‌বিক না হ‌লে প্রবাসী কর্মহীন শ্রমিক‌দের বাধ‌্য হ‌য়ে দে‌শে চ‌লে আস‌তে হ‌বে এবং যারা বি‌দে‌শে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় ছি‌লেন তারাও আর যে‌তে পার‌বেন না। ফ‌লে চরম এক বিপা‌কে পড়‌তে যা‌চ্ছে বাংলা‌দেশের শ্রমবাজার।

বায়রার তথ্যে জানা যায়, এরই মধ্যে ২ হাজার ১৮৬টি ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে। আরো ভিসার মেয়াদোত্তীর্ণের ঝুঁকিতে রয়েছে ৮২ হাজার ৫৮৯ জন শ্রমিক।

ভিসা স্ট্যাম্পের জন্য অপেক্ষমাণ ছিলেন ৩০ হাজার ৪২২ জন। এছাড়া, ভিসা স্ট্যাম্পিং সম্পন্ন হয়েছে ১৯ হাজার ১৯৮ জনের, জনশক্তি ছাড়পত্র পেয়েছে ২২ হাজার ৯৮৭টি। ফ্লাইট বাতিল হয়েছে ৩ হাজার ৭৪ ও অন্যান্য প্রক্রিয়ায় আ‌রও বা‌তিল হ‌য়ে‌ছে ৬ হাজার ৯০৪টি।

এ বিষয়ে বায়রার মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান ব‌লেন, ‘এরই মধ্যে প্রায় ৩ হাজার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে আরো প্রায় ৮২ হাজার। এ সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। এসব কর্মীর ভিসা প্রক্রিয়ার যাবতীয় কাজ করতে এজেন্সিগুলোর ১৫ কোটি টাকার বে‌শি খরচ হয়ে গেছে।’

শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান আরও বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ করছি। আসন্ন ঈদের পর আবারো কর্মী পাঠানো যায় কিনা, সে চেষ্টাও অব্যাহত র‌য়ে‌ছে। পাশাপা‌শি বর্তমান পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক শ্রম- বাজারে টিকে থাকতে হলে দক্ষ শ্রমিক রফতানিতে জোর দিতে হবে আমা‌দের। কারণ স‌মগ্র বিশ্বে অর্থনী‌তির মূল চা‌লিকা শক্তি‌তে রুপান্তরিত হ‌বে স্বাস্থ্য ও কৃষি খাত। তাই এই দুই‌টি খা‌তে প্রচুর শ্রমিক প্রয়োজন হবে। তাই আমাদের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে এ সুযোগ কাজে লাগাতে হবে।’

Facebook Comments

Posted ৩:১৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৯ জুলাই ২০২০

dailymatrivumi.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক
মোহাম্মদ নুরুজ্জামান মুন্না
প্রকাশক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মশি শ্রাবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়

রূপায়ন করিম টাওয়ার, ৮০ কাকরাইল, ভিআইপি রোড, রমনা ঢাকা।
ফোন : ০২৪৮৩২২৮৮০
email : matrivumi@gmail.com

মিরর মাল্টি মিডিয়া প্রডাকশন লি: এর পক্ষে প্রকাশক মশি শ্রাবন কর্তৃক বি.এস.প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবী সার্কুলার রোড (মামুন ম্যানশন, গ্রাউন্ড ফ্লোর), থানা-ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।