মঙ্গলবার | ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

A National Daily In Bangladesh

কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া রুটে ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড়

কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া রুটে ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড়

কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুট হয়ে শুক্রবার সকাল থেকেই ঈদের ছুটিতে ঘরে ফিরছে দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার মানুষ।

ফেরি, লঞ্চ, স্পিডবোটে উত্তাল পদ্মা নদী পার হয়ে যাত্রীরা নামছেন কাঁঠালবাড়ি ঘাটে।

কাঁঠালবাড়ি ঘাটে রয়েছে মানুষের উপচেপড়া ভিড়। ঘাটে যাত্রীদের যাতে কোনো ধরনের হয়রানি না হয় সে জন্য পুলিশ সদস্যরা ঘাটে দায়িত্ব পালন করছেন।

ঘাট সূত্রে জানা গেছে, পদ্মা নদীতে উত্তাল স্রোতের কারণে রাতে ফেরি, লঞ্চ, স্পিডবোট চলাচল বন্ধ থাকায় শুক্রবার ভোরের আলো উদয় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলগামী ঘরমুখো মানুষের চাপ বাড়তে শুরু করে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে।

শিমুলীয়া থেকে ছেড়ে আসা ফেরিগুলোতে জরুরি অ্যাম্বুলেন্স, ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি যাত্রীদের চাপও দেখা গেছে। তবে কাঁঠালবাড়ি থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরিগুলোতে যানবাহন বা যাত্রীদের চাপ না থাকায় ফেরিগুলো কম যানবাহন নিয়েই পারাপার হচ্ছে।

অন্যদিকে লঞ্চ ও স্পিডবোটে বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই পারাপার হচ্ছেন।

ঘাটে দায়িত্ব পালন করা মাদারীপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবির হোসেন বলেন, শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকা থেকে ঈদে ঘরে ফেরা মানুষের চাপ রয়েছে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে। যাত্রীরা ফেরি, লঞ্চ ও স্পিডবোর্ডে করে পদ্মা নদী পার হয়ে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে এসে নামছে। ঘাটে যাত্রীরা যাতে কোনো ধরনের হয়রানি না হয় সে জন্য দুইশত পুলিশ সদস্য ২৪ ঘণ্টা ঘাটে দায়িত্ব পালন করছে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে পুলিশের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতের টিম রয়েছে।

Facebook Comments

Posted ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০২০

dailymatrivumi.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক
মোহাম্মদ নুরুজ্জামান মুন্না
প্রকাশক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মশি শ্রাবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়

রূপায়ন করিম টাওয়ার, ৮০ কাকরাইল, ভিআইপি রোড, রমনা ঢাকা।
ফোন : ০২৪৮৩২২৮৮০
email : matrivumi@gmail.com

মিরর মাল্টি মিডিয়া প্রডাকশন লি: এর পক্ষে প্রকাশক মশি শ্রাবন কর্তৃক বি.এস.প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবী সার্কুলার রোড (মামুন ম্যানশন, গ্রাউন্ড ফ্লোর), থানা-ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।