সোমবার | ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

A National Daily In Bangladesh

বৃষ্টির শব্দ ভেদ করেও রায়হানের আর্তনাদের শব্দে কেঁপে উঠেছিলো ফাঁড়ির পাশের মানুষ

বৃষ্টির শব্দ ভেদ করেও রায়হানের আর্তনাদের শব্দে কেঁপে উঠেছিলো ফাঁড়ির পাশের মানুষ

সেই রাতে রায়হানের আর্তনাদ বৃষ্টির শব্দ ছাপিয়ে ছড়িয়ে পরেছিলো সিলেটে পুলিশ ফাঁড়ির আশপাশে। ফাঁড়ির লাগোয়া হোটেলের বাসিন্দা হাসান খান ও নাজমুল ইসলাম জানিয়েছেন রায়হানের আর্তচিৎকার শুনে তারা কেঁপে উঠেছিলেন।

অথচ পুলিশের দাবি ছিলো ছিনতাইয়ের সময় গণপিটুনিতে মারা গেছে রায়হান।

যদিও তার পরিবারের সদস্যরা বরাবরই দাবি করে আসছেন রায়হানকে থানায় নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়েছে।
১০ অক্টোবর রাত ২ টায় হোটেলে ফেরেন ব্যবসায়ী হাসান খান।

তারপর হাত-মুখ ধুয়ে সামান্য জিরিয়ে নিতেই হোটেল লাগোয়া সিলেট নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি থেকে ভেসে আসে বুক ফাটা আর্তনাদ। সেই সাথে বাঁচার আকুতি। আর নির্মমতা এত বেশি ছিল যে বৃষ্টির শব্দ ভেদ করেও আসে যুবক রায়হানের সেই আর্তনাদের শব্দ।

সময়ে সময়ে একটা টর্চার সেল হয়ে ওঠেছিল বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি। যেখানে শুধু রায়হানই প্রথম নয়, আরও অসংখ্য দিন এমন বাঁচার আকুতি কিংবা আর্তনাদ কানে আসতো বলে জানালেন হোটেলের আরেক বাসিন্দা নাজমুল ইসলাম।

এমন বিশদ বর্ণনা শুনে বরাবরের মতো নিরপেক্ষ তদন্তের আশ্বাস দিলেন পুলিশের এডিসি বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের।

পুলিশ ফাঁড়িতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়ে গত রোববার সকালে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে মারা যান রায়হান উদ্দিন।
এ ঘটনায় রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি নাম না জানা কয়েকজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। যার তদন্ত করছে পিবিআই। মামলার পর থেকে পলাতক রয়েছে মূল হোতা বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ অকবর হোসেন।

Facebook Comments

Posted ১০:১৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২০

dailymatrivumi.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক
মোহাম্মদ নুরুজ্জামান মুন্না
প্রকাশক ও ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মশি শ্রাবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়

রূপায়ন করিম টাওয়ার, ৮০ কাকরাইল, ভিআইপি রোড, রমনা ঢাকা।
ফোন : ০২৪৮৩২২৮৮০
email : matrivumi@gmail.com

মিরর মাল্টি মিডিয়া প্রডাকশন লি: এর পক্ষে প্রকাশক মশি শ্রাবন কর্তৃক বি.এস.প্রিন্টিং প্রেস, ৫২/২ টয়েনবী সার্কুলার রোড (মামুন ম্যানশন, গ্রাউন্ড ফ্লোর), থানা-ওয়ারী, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।